মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ক্যান্সার, কিডনি, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ এবং থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত রোগীদের আর্থিক সহায়তা কর্মসূচি

২০১৩-১৪ অর্থ বছর হতে চালু হয়েছে। উক্ত রোগে আক্রান্ত গরীব রোগীদের সনাক্ত করে সমাজসেবা অধিদফতরের জনবল, স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনের সহযোগিতায় নীতিমালা অনুসরণ করে প্রকৃত দুস্থ ও অসহায় ব্যক্তিদের তালিকা প্রণয়নপূর্বক গৃহীত কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ক্যান্সার, কিডনী, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যরালাইজড , জন্মগত হৃদরোগ ও থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্তান্ত গরীব রোগীদের জন প্রতি ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা হারে বাজেট প্রাপ্তি সাপেক্ষে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করা হয়। এর মাধ্যমে আক্রান্ত রোগীর পরিবারের ব্যয়ভার বহনে এবং সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে সহায়তা করা হয়।

আবেদনের পূর্বে নিম্নবর্ণিত নির্দেশিকা ভালভাবে পড়ুন:

  • ক. আবেদনকারী/রোগীকে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে; সর্বোচ্চ দুস্থ ব্যক্তিকে অগ্রাধিকার প্রদান করা হবে; আর্থিক অবস্থার ক্ষেত্রে: শিশু, নিঃস্ব, উদ্বাস্তু ও ভূমিহীনকে ক্রমানুসারে অগ্রাধিকার দেয়া হবে; সামাজিক অবস্থার ক্ষেত্রে: বয়োজ্যেষ্ঠ, বিধবা, তালাকপ্রাপ্তা, বিপত্নীক, নিঃসস্তান, পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন ব্যক্তিদেরকে ক্রমানুসারে অগ্রাধিকার দেয়া হবে; প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ভূমিহীন প্রার্থীকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে; এ ক্ষেত্রে বসতবাড়ী ব্যতীত কোন ব্যক্তির জমির পরিমাণ ০.৫০ একর বা তার কম হলে তিনি ভূমিহীন বলে গণ্য হবেন।
  • খ. আবেদনের সাথে নিম্নবর্ণিত প্রত্যয়ন পত্র, ব্যবস্থাপত্র/টেস্ট রিপোর্ট ও তথ্যাদি সংযুক্ত করে পূর্ণাঙ্গ আবেদন অবশ্যই সংশ্লিষ্ট জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ে দাখিল করতে হবে:
    • ১. নির্ধারিত ফরমে রেজিস্টার্ড ডাক্তার কর্তৃক প্রদেয় সংশ্লিষ্ট রোগের প্রত্যয়ন পত্রের মূলকপি সংযুক্ত করতে হবে;
    • ২. ক্যান্সার, কিডনী, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ ও থালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত রোগীকে অবশ্যই সংশ্লিষ্ট রোগের বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের নিম্নবর্ণিত ব্যবস্থাপত্র ও টেস্ট রিপোর্ট আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে:
      • ২. ১. ক্যান্সার রোগের ক্ষেত্রে Histopathology /Cytopahtology/Bone Marrow Report বা অন্যান্য টেস্ট রিপোর্ট;
      • ২. ২. কিডনী রোগের ক্ষেত্রে Acute Renal Failure অথবা Chronic Renal Failure এ আক্রান্ত ডায়ালাইসিস সেবা নিচ্ছে, কিডনী প্রতিস্থাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছে অথবা কিডনী প্রতিস্থাপন করেছে এমন রোগীদেরকে প্রযোজ্য রিপোর্ট এবং রক্তে ইউরিয়া ও ক্রিয়েটিনের মাত্রার রিপোর্ট;
      • ২. ৩. লিভার সিরোসিস রোগের ক্ষেত্রে লিভারের আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্ট;
      • ২. ৪. ষ্ট্রোকে প্যারালাইজড আক্রান্ত রোগীকে নিউরোলজিষ্ট কর্তৃক প্রত্যায়িত হতে হবে এবং MRI/CT Scan Report রিপোর্ট;
      • ২. ৫. জন্মগত হৃদরোগের ক্ষেত্রে Echo Cardiogram রিপোর্ট;
      • ২.৬  থ্যালাসেমিয়া রোগীর ক্ষেত্রে Blood Electroforesis রিপোর্ট জমা দিতে হবে।
    • ৩. রোগীর জাতীয় পরিচয়পত্র/জন্ম সনদের ১ম শ্রেণীর গেজেটেড অফিসার কর্তৃক সত্যায়িত ফটোকপি এবং সদ্য তোলা ৩কপি সত্যায়িত ফটো;
    • ৪. রোগীর বয়স আবেদনের তারিখে ১৮ বছরের কম/ মূমূর্ষ অবস্থায় থাকলে তার বৈধ অভিভাবক আবেদন করতে পারবেন, সেক্ষেত্রে আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয়পত্রের ১ম শ্রেণীর গেজেটেড অফিসার কর্তৃক সত্যায়িত ফটোকপি; এবং সদ্য তোলা ৩কপি সত্যায়িত ফটো।

 

অনলাইনে আবেদন করুন: www.welfaregrant.gov.bd

আবেদন ফরম (pdf) (আবেদন ফরমসহ আনুসাঙ্গিক কাগজপত্র ও প্রত্যয়ন পত্র পূরণ করে ০২(দুই) কপি নিজ নিজ উপজেলা অথবা শহর সমাজসেবা কার্যালয়ে জমা দিতে হবে। উল্লেখ্য, বছরের যে কোন সময়ে সংশ্লিষ্ট উপজেলা/ শহর সমাজসেবা কার্যালয়গুলোতে আবেদন জমা দেয়া যাবে।  বিভাগীয় কার্যালয়, জেলা কার্যালয় কিংবা সমাজসেবা অধিদফতরে সরাসরি আবেদন প্রেরণের সুযোগ নেই।

বরিশাল বিভাগের ০৬ টি জেলায় এ কর্মসূচি চলমান রয়েছে।

 

ক্রঃ

কর্মসূচির নাম

উপকারভোগীর সংখ্যা

(২০১৯-২০ অর্থ বছর)

ভাতার পরিমাণ (মাসিক)

ক্যান্সার, কিডনী, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড ও জন্মগত হৃদরোগের রোগীদের অর্থিক সহায়তা

এ পর্যন্ত

১৮৫৫

এককালীন ৫০০০০/-

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter