মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সেবাসমূহ

১। আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সেবা (সুদমুক্ত ক্ষুদ্রঋণ):

 

** পল্লী সমাজসেবা কার্যক্রম (RSS):

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ে পল্লী সমাজসেবা কার্যক্রম (RSS) পরিচালিত হয়। ইউনিয়ন/পৌরসভা পর্যায়ে জরিপের মাধ্যমে সদস্য নির্বাচন করে গ্রামে কর্মদল গঠন করা হয়। কর্মদলে গ্রাম কমিটির সভাপতি/দলনেতা/নেত্রী নির্বাচন করা হয়। কর্মদলের নিয়মিত সভায় উপজেলা সমাজসেবা অফিসার/ ফিল্ড সুপারভাইজার/ ইউনিয়ন সমাজকর্মী উপস্থিত হয়ে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন সম্পর্কে সাধারণ ধারণা দেয়া হয়। তাছাড়া সদস্যদের সঞ্চয়ী মনোভাব তৈরী করা হয়।ক্ষুদ্রঋণবিতরণের লক্ষ্যে স্থানীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের সরবরাহকৃত ঋণের স্কীম ফরম ও চুক্তিপত্রপূরণ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাপতিত্বে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক ঋণগ্রহীতাদের মাঝে ৫০০০/- টাকা হতে সর্বোচ্চ ৩০০০০/-টাকা পর্যন্ত ১০% সার্ভিস চার্জে ১(এক) বছরে ১০ কিস্তিতে পরিশোধের লক্ষ্যে ঋণ বিতরণ করা হয়।

 

** পল্লী মাতৃকেন্দ্র কার্যক্রম (RMC):

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ে পল্লী মাতৃকেন্দ্র কার্যক্রম (RMC)

পরিচালিত হয়। ইউনিয়ন/পৌরসভা পর্যায়ে জরিপের মাধ্যমে সদস্য নির্বাচন করে গ্রামে কর্মদল গঠন করা হয়। কর্মদলে গ্রাম কমিটির সভাপতি/দলনেতা/নেত্রী নির্বাচন করা হয়। কর্মদলের নিয়মিত সভায় উপজেলা সমাজসেবা অফিসার/ ফিল্ড সুপারভাইজার/ ইউনিয়ন সমাজকর্মী উপস্থিত হয়ে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন সম্পর্কে সাধারণ ধারণা দেয়া হয়। তাছাড়া সদস্যদের সঞ্চয়ী মনোভাব তৈরী করা হয়।ক্ষুদ্রঋণ বিতরণের লক্ষ্যে স্থানীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের সরবরাহকৃত ঋণের স্কীম ফরম ও চুক্তিপত্রপূরণ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাপতিত্বে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক ঋণগ্রহীতাদের মাঝে ৫০০০/- টাকা হতে সর্বোচ্চ ৩০০০০/-টাকা পর্যন্ত ১০% সার্ভিস চার্জে ১(এক) বছরে ১০ কিস্তিতে পরিশোধের লক্ষ্যে ঋণ বিতরণ করা হয়।

 

** দগ্ধ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের পুনর্বাসন কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ে  দগ্ধ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের পুনর্বাসন কার্যক্রম:

পরিচালিত হয়। ইউনিয়ন/পৌরসভা পর্যায়ে জরিপের মাধ্যমে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের  সদস্য নির্বাচন করে গ্রামে কর্মদল গঠন করা হয়। কর্মদলে গ্রাম কমিটির সভাপতি/দলনেতা/নেত্রী নির্বাচন করা হয়। কর্মদলের নিয়মিত সভায় উপজেলা সমাজসেবা অফিসার/ ফিল্ড সুপারভাইজার/ ইউনিয়ন সমাজকর্মী উপস্থিত হয়ে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন সম্পর্কে সাধারণ ধারণা দেয়া হয়। তাছাড়া সদস্যদের সঞ্চয়ী মনোভাব তৈরী করা হয়। ক্ষুদ্রঋণ বিতরণের লক্ষ্যে স্থানীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের সরবরাহকৃত ঋণের স্কীম ফরম ও চুক্তিপত্রপূরণ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাপতিত্বে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক ঋণগ্রহীতাদের মাঝে ৫০০০/- টাকা হতে সর্বোচ্চ ৩০০০০/-টাকা পর্যন্ত ৫% সার্ভিস চার্জে ১(এক) বছরে ১০ কিস্তিতে পরিশোধের লক্ষ্যে ঋণ বিতরণ করা হয়। তাছাড়া প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সাহায্য প্রদান করা হয়।

 

** শহর সমাজসেবা কার্যক্রম:

 

শহর সমাজসেবা কার্যালয় সকল প্রকার ভাতা কার্যক্রম এবং পল্লী সমাজসেবা কার্যক্রম (RSS), দগ্ধ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের পুনর্বাসন কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

 

** আশ্রয়ণ কার্যক্রম:

 

আশ্রয়ণ কার্যক্রমের মাধ্যমে ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। সরকার নির্মিত ব্যারাক হাউজে আশ্রয়ণ নিবাসীদেরকে সমবায় অধিদফতরের মাধ্যমে সংগঠিত করে ক্ষুদ্রঋণ বিতরণ করা হয়। ৮% সার্ভিস চার্জে ১(এক) বছরে ১০ কিস্তিতে পরিশোধের লক্ষ্যে ঋণ বিতরণ করা হয়।

 

২। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচিঃ

 

** বয়স্ক ভাতা কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভা/ সিটিকর্পোরেশনের সমাজসেবা কার্যালয়ে বয়স্কভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ১৯৯৭ সাল থেকে বয়স্ক ভাতা কার্যক্রম নীতিমালা মোতাবেক ওয়ার্ড কমিটি, ইউনিয়ন কমিটি, উপজেলা কমিটির মাধ্যমে ভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এলাকার ৬২ ও তদুর্ধ বয়সী মহিলা এবং ৬৫ ও তদুর্ধ পুরুষ ব্যক্তিকে বয়স্কভাতা প্রদান করা হয়।

 

  ** বিধবা ও স্বামী নিগৃহীতা দু:স্থ মহিলা ভাতা কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভার সমাজসেবা কার্যালয়ে বিধবা ভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ১৯৯৭ সাল থেকে বিধবা ভাতা কার্যক্রম নীতিমালা মোতাবেক ওয়ার্ড কমিটি, ইউনিয়ন কমিটি, উপজেলা কমিটির মাধ্যমে ভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এলাকার বিধবা ও স্বামী নিগৃহীতা অসহায় দু:স্থ মহিলাদের এ ভাতা প্রদান করা হয়।

 

** অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভা/ সিটিকর্পোরেশনের সমাজসেবা কার্যালয়ে অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ২০০৫-২০০৬ অর্থ বছরে থেকে এ ভাতা কার্যক্রম নীতিমালা মোতাবেক ওয়ার্ড কমিটি, ইউনিয়ন কমিটি, উপজেলা কমিটির মাধ্যমে ভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এলাকার বিভিন্ন ধরনের প্রতিবন্ধী  ব্যক্তিকে জরিপের আওতায় এনে ভাতা প্রদান করা হয়।

 

**  প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভা/ সিটিকর্পোরেশনের সমাজসেবা কার্যালয়ে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নীতিমালা মোতাবেক উপজেলা ও জেলা কমিটির মাধ্যমে যাচাই বাছাই করে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হয়।  

 

**  হিজড়া জনগোষ্ঠীর বিশেষ ভাতা কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভা/ সিটিকর্পোরেশনের সমাজসেবা কার্যালয়ে হিজড়া জনগোষ্ঠীর বিশেষ ভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নীতিমালা মোতাবেক বিভিন্ন কমিটির মাধ্যমে যাচাই বাছাই করে হিজড়া জনগোষ্ঠীকে বিশেষ ভাতা প্রদান করা হয়।

 

**  হিজড়া শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভা/ সিটিকর্পোরেশনের সমাজসেবা কার্যালয়ে হিজড়া শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নীতিমালা মোতাবেক বিভিন্ন কমিটির মাধ্যমে যাচাই বাছাই করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত হিজড়া শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি প্রদান করা হয়।

 

**  বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর বিশেষ ভাতা কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভা/ সিটিকর্পোরেশনের সমাজসেবা কার্যালয়ে অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর বিশেষ ভাতা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নীতিমালা মোতাবেক বিদ্যমান কমিটির মাধ্যমে যাচাই বাছাই করে বিভিন্ন  জনগোষ্ঠীকে বিশেষ ভাতা প্রদান করা হয়।

 

 

** বেদে ও অনগ্রসর শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম:

 

সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় দেশের সকল উপজেলা/ পৌরসভা/ সিটিকর্পোরেশনের সমাজসেবা কার্যালয়ে অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নীতিমালা মোতাবেক বিদ্যমান কমিটির মাধ্যমে যাচাই বাছাই করে   বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত  শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি প্রদান করা হয়।

 

৩।  এতিম, অবহেলিত, দু:স্থ ও বিপন্ন শিশুদের অধিকার সুরক্ষা, প্রতিপালন, কল্যাণ, উন্নয়ন ও পুনর্বাসন:

 

** সরকারি শিশু পরিবারে এতিম শিশু প্রতিপালন ও পুনর্বাসন:

 

সারাদেশের জেলা শহরে অবস্থিত সরকারি শিশু পরিবারসমূহে নীতিমালা মোতাবেক পিতৃহীন/মাতৃহীন এতিম, অসহায় ও দু:স্থ শিশুদের যাচাই বাছাই ও সভার মাধ্যমে ০৬ বছর হতে ০৯ বছর বয়সী শিশুদের ভর্তি করা হয়। এতিম শিশুদের ১৮ বছর পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানে লালন পালন শেষে পুনর্বাসন করা হয়।

 

** ছোটমনি নিবাসে শিশু প্রতিপালন ও পুনর্বাসন:

 

দেশের বিভাগীয় জেলা শহরে অবস্থিত ছোটমনি নিবাসে নীতিমালা মোতাবেক পিতৃহীন/মাতৃহীন ও পরিচয়হীন এতিম, অসহায় ও দু:স্থ নবজাতক শিশুদের ভর্তি করা হয়।  শিশুদের ০৬ বছর পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানে লালন পালন শেষে সরকারি শিশু পরিবারে ভর্তি করা হয়।

 

** দু:স্থ ও ভবঘুরে শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম:

 

দেশের বিভাগীয় জেলা শহরে অবস্থিত দু:স্থ ও ভবঘুরে শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম নীতিমালা মোতাবেক দু:স্থ ও ভবঘুরে শিশুদের ভর্তি করা হয়।  শিশুদের প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণ শেষে পুনর্বাসন করা হয়।

 

** এতিম মেয়েদের কারিগরি প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম:

 

দেশের জেলা শহরে অবস্থিত এতিম মেয়েদের কারিগরি প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম নীতিমালা মোতাবেক সরকারি শিশু পরিবারের শিশুদের ভর্তি করা হয়।  শিশুদের প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণ শেষে পুনর্বাসন করা হয়।

 

** প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার সুরক্ষা , প্রতিপালন, কল্যাণ, উন্নয়ন ও পুনর্বাসন কার্যক্রম:

 

** প্রতিবন্ধিতা শনাক্তকরণ জরিপ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের পরিচয়পত্র প্রদান:

 

দেশের উপজেলা, পৌরসভা ও সিটিকর্পোরেশনে প্রতিবন্ধিতা শনাক্তকরণ জরিপ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের পরিচয়পত্র প্রদান কার্যক্রম নীতিমালা মোতাবেক পরিচালিত হচ্ছে। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সুবর্ন নাগরিক হিসেবে জরিপ করে প্রতিবন্ধী পরিচয়পত্র প্রদান করা হয়। 

 

** দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় পরিচালনা:

 

দেশের কিছু জেলায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় পরিচালিত হচ্ছে।  নীতিমালা মোতাবেক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিশুদের ভর্তি করা হয়। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের লেখাপড়া, লালন পালন ও পুনর্বাসন করা হয়।

 

** সমন্বিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষা কার্যক্রম:

 

দেশের জেলা শহরে সমন্বিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।  নীতিমালা মোতাবেক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিশুদের ভর্তি করা হয়। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্র/ছাত্রীদের লেখাপড়া, লালন পালন ও পুনর্বাসন করা হয়।

 

 

 

৪।  সামাজিক অপরাধ প্রবণদের উন্নয়ন ও পুনর্বাসন:

 

** প্রবেশন ও আফটার কেয়ার কর্মসূচি বাস্তবায়ন:

 

দেশের জেলা শহরের আদালত/ কোর্টসমূহে এর কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

 

৫। অসহায় দুস্থ: রোগীদের অধিকার সুরক্ষা, কল্যাণ ও পুনর্বাসন:

 

** হাসপাতাল/চিকিৎসা সমাজসেবা কার্যক্রম:

 

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় হাসপাতাল/চিকিৎসা সমাজসেবা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।  নীতিমালা মোতাবেক অসহায়, দু:স্থ ও গরীব রোগীদের চিকিৎসা সেবা ও আর্থিক সাহায্য প্রদান করা হয়।

 

** দগ্ধজনিত কারণে ক্ষতিগ্রস্থ ও দু:স্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসন:

 

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় দগ্ধজনিত কারণে ক্ষতিগ্রস্থ ও দু:স্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।  নীতিমালা মোতাবেক দগ্ধজনিত কারণে ক্ষতিগ্রস্থ ও দু:স্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসন প্রদান করা হয়।

 

৬। সামাজিক অনাচার প্রতিরোধে সহায়তা:

 

** সামাজিক প্রতিবন্ধী মেয়েদের প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন:

 

দেশের কতিপয় বিভাগীয় শহরে  সামাজিক প্রতিবন্ধী মেয়েদের প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।  নীতিমালা মোতাবেক শহরে অনৈতিক কাজ লিপ্ত থাকা মেয়েদের  প্রশাসনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানে এনে লেখাপড়া ও প্রশিক্ষণ প্রদান শেষে  পুনর্বাসন প্রদান করা হয়।

 

** মহিলা ও শিশু কিশোরী হেফাজতীদের নিরাপদ আবাসন (সেফহোম):

 

দেশের বিভাগীয় শহরে  মহিলা ও শিশু কিশোরী হেফাজতীদের নিরাপদ আবাসন (সেফহোম) কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।  নীতিমালা মোতাবেক বিচারিক আদালতের নির্দেশে মামলা চলাকালীন সময়ে প্রতিষ্ঠানে এনে লেখাপড়া ও প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। আদালতের নির্দেশে মামলা শেষে  উপযুক্ত অভিভাবকের কাছে ভিকটিমকে ফেরৎ প্রদান করা হয়।

 

৭। দক্ষতা উন্নয়ন ও প্রশিক্ষণ:

 

** আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিচালনা:

 

দেশের বিভাগীয় শহরে সমাজসেবা অধিদফতরের  আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিচালিত হচ্ছে। এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিভাগের সকল ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারিদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

 

** জেলা, উপজেলা ও শহর পর্যায়ে আর্থ-সামাজিক ও দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ:

দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা ও শহর পর্যায়ে সমাজসেবা অধিদফতরের ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রমের আওতায় আর্থ-সামাজিক ও দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ পরিচালিত হচ্ছে। এ কার্যক্রমের মাধ্যমে ঋণ গ্রহীতাদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও দক্ষতা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

 

৮। স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহকে নিবন্ধন ও সহায়তা:

 

** স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহ নিবন্ধন ও তত্বাবধান:

 

দেশের প্রতিটি জেলা কার্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহ নিবন্ধন ও তত্বাবধান করা হয়। এতদসংক্রান্ত ১৯৬১ সনের স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহ নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রন আইন অনুযায়ী কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

 

 

** বে-সরকারি নিবন্ধনকৃত এতিমখানার ক্যাপিটেশন গ্রান্ট প্রদান:

 

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় বে-সরকারি নিবন্ধনকৃত এতিমখানার ক্যাপিটেশন গ্রান্ট প্রদান  কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নিবন্ধনকৃত বে-সরকারি এতিমখানার নীতিমালা মোতাবেক পিতৃহীন, মাতৃহীন, অসহায় দু:স্থ শিশুদের ভর্তি করে প্রতিষ্ঠানে লালন পালন, লেখাপড়া করাসহ শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়। সময় মত পুনর্বাসন করা হয়।

 

** সমাজকল্যাণ পরিষদের মাধ্যমে নিবন্ধনপ্রাপ্ত সংস্থাসমূহে অনুদান প্রদানে সহায়তা:

 

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় সমাজকল্যাণ পরিষদের মাধ্যমে নিবন্ধনপ্রাপ্ত সংস্থাসমূহে অনুদান কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নিবন্ধনপ্রাপ্ত সংস্থাসমূহে নীতিমালা মোতাবেক প্রতি বছর এককালীন অনুদান প্রদান করা হয়।

 

** স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা/প্রতিষ্ঠানসমূহের সাথে উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা:

 

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা/প্রতিষ্ঠানসমূহের সাথে উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

 

** স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা/প্রতিষ্ঠানসমূহের সাথে সমঝোতা:

 

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা/প্রতিষ্ঠানসমূহের সাথে দাতা সংস্থা সমঝোতার মাধ্যমে কাজ করে থাকে।

 

** এডভোকেসি , জাতীয় আন্তর্জাতিক দিবস পালনের মাধ্যমে গণসচেতনতা:

 

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা/প্রতিষ্ঠানসমূহের কর্মকর্তা ও এতিম নিবাসীদের সমন্বয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস পালন ও এডভোকেসি সভা করা হয়।

/


 

ছবি


সংযুক্তি



Share with :

Facebook Twitter